সমকামীদের প্রবেশে অনুমতি নেই কোহলীর রেস্তোরাঁয়


বিতর্কে জড়াল বিরাট কোহলীর রেস্তোরাঁ ‘ওয়ান৮ কমিউন’। পুণের ওই রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে সমকাম-বিদ্বেষের অভিযোগ তুলল এলজিবিটিকিউআইএ+ মানুষদের অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন ‘ইয়েসউইএক্সজিস্ট’। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

ইনস্টাগ্রামে ওই সংগঠনের অভিযোগ, কোহলীর রেস্তোরাঁয় শুধুমাত্র বিসমকামী যুগল ও মেয়েদের ঢুকতে দেওয়া হয়। সমকামীদের প্রবেশে অনুমতি নেই। ‘ইয়েসউইএক্সজিস্ট’-এর দাবি, প্রথমে তাদের তরফে সরাসরি বার্তা পাঠানো হয়। কিন্তু কোনও জবাব মেলেনি। পরে ফোন করে যোগাযোগ করা হলে রেস্তরাঁর ওই শাখা বিষয়টি স্বীকার করে নেয়।

সংগঠনের আরও দাবি, কর্তৃপক্ষ তাদের জানান, রেস্তোরাঁয় সমকামী যুগল বা সমকামী যুবকদের ঢুকতে দেওয়া হয় না। অন্য দিকে, পোশাক-পরিচ্ছদ দেখেই ঢুকতে দেওয়া হয় রূপান্তরকামী মহিলাদের।

যদিও লিঙ্গের ভিত্তিতে বৈষম্যের সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেছে ‘ওয়ান৮ কমিউন’। রেস্তোরাঁর কর্মী অমিত জোশী বলেন, ‘কোনও পুরুষ একা এলে তাঁকে আমরা ঢুকতে দিই না। মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখেই এই নিয়ম চালু করা হয়েছে। যদি ছেলেমেয়েদের দল আসে, তাতে কোনও সমস্যা নেই। লিঙ্গের ভিত্তিতে কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই এখানে। ’

‘ওয়ান৮ কমিউন’ এর দিল্লি শাখার কর্মী নীহারিকা কুরার বলেন, ‘আমাদের রেস্তোরাঁয় ছেলেরা ঢুকতেই পারে। আমরা অতিথিকে না বলতে পারি না। যখন রেস্তরাঁ ভর্তি থাকে, তখনই একা আসা পুরুষদের ফিরিয়ে দিতে হয়। কিংবা কেউ ছোট প্যান্ট পরে এলে তাঁকেও ঢুকতে দেওয়া হয় না।’

ডি-এফবি



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *