মিরপুরে পতাকা উড়িয়ে পাকিস্তানের অনুশীলন


চমক থাকছে টাইগার স্কোয়াডেও

বাংলাদেশ সফরে ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ও ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের জন্য ১৮ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে তারা। তবে ১৬ জন ইতোমধ্যে বাংলাদেশে আসলেও অধিনায়ক বাবর আজম ও শোয়েব মালিক এখনো এসে পৌঁছাননি। মঙ্গলবার এ দুজন ঢাকায় আসছেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে এখনো টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করেনি বিসিবি।

বিশ্বকাপে টাইগাররা হতাশ করায় দলে পরিবর্তন আসবে বলে আগেই জানিয়েছেন নীতিনির্ধারকরা। তিন দিন আগে যে দল ঘোষণার কথা তা কেন মঙ্গলবার ঘোষণা করা হবে এ নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিসিবির এক পরিচালক জানিয়েছেন, পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগার দলে চমক থাকছে। বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়কে বিশ্রামে পাঠানোর সম্ভাবনা রয়েছে। দলে বেশ কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় জায়গা পেতে পারেন।

পাকিস্তানের বিপক্ষে দলে কারা থাকছেন, কারা বাদ পড়ছেন না বললেও ধারণা করা হচ্ছে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ওপেনিং জুটি ভালো করেনি। ওপেনিংয়ে পরিবর্তনসহ মিডল অর্ডারেও পরিবর্তন আসার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। বোলিং বিভাগেও পরিবর্তন আসতে পারে। টাইগাররা মিরপুরে ১২ নভেম্বর থেকে অনুশীলন করলেও সেখানে ছিলেন না মুশফিক। পরিবার নিয়ে দুবাই ভ্রমণ শেষে শনিবার ঢাকায় ফিরে রবিবার মিরপুরে গিয়েছিলেন মুশফিক। সবার আগে মাঠে গিয়ে জিম করার পর ইনডোরে ব্যাটিং করেন। দলের সঙ্গে আর অনুশীলন করেননি।

সোমবার শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দেখা মেলে মুশফিকের একা একা অনুশীলনের দৃশ্যের। জল্পনা-কল্পনা চলছে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে জায়গা নাও মিলতে পারে মুশফিকের। শুধু দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে প্রস্তুত হচ্ছেন তিনি। বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে হতাশ করা আরো অনেকের পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে জায়গা হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সফরে এসে সোমবার প্রথম অনুশীলনে মাঠে নামে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল। সকাল সাড়ে ১০টায় মিরপুরের একাডেমি মাঠে গা গরমের পর নেট প্র্যাকটিস করেন দলটির ক্রিকেটাররা। সফরকারী দলের নেট প্র্যাকটিস করার সময় অভিনব একটি জিনিস ধরা পড়ে সবার চোখে। শেরেবাংলা একাডেমির পশ্চিম-উত্তর কোণে নেটের দুদিকে নিজেদের জাতীয় পতাকা টানিয়ে ব্যাটিং-বোলিং প্র্যাকটিস করতে থাকেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।

বিশ্রামে থাকা মোহাম্মদ রিজওয়ানকে ছাড়াই মিরপুরে অনুশীলন করেছে পাকিস্তান জাতীয় দল। গুমট আবহাওয়ায় বিসিবি একাডেমি মাঠে ঘাম ঝরানো অনুশীলন করেছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি, শাদাব খানরা। মোহাম্মদ রিজওয়ান পুরোপুরি ফিট থাকলেও তাকে বিশ্রামে রেখেছে দল। বাকিদের নিয়ে আঁটসাঁট অনুশীলন করেছেন পাকিস্তানের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ সাকলায়েন মুশতাক।

মিরপুরে পৌঁছানোর পর জড়তা কাটাতে ফিটনেস ট্রেনিং করেন ক্রিকেটাররা। এরপর চলে ফিল্ডিং অনুশীলন। ছোট ছোট গ্রুপে ভাগ হয়ে তাদের ফিল্ডিং অনুশীলন ছিল দেখার মতো। সিরিজে শিশির প্রভাব রাখতে পারে। মাঠ ভেজা থাকবে তা অনুমেয়। এজন্য গ্রাউন্ডস ফিল্ডিং স্লাইড ও ক্যাচ অনুশীলনে ডাইভিংয়ের অনুশীলন করেছেন ক্রিকেটাররা।

মিরপুরে অনুশীলনে পাকিস্তান দল

অনুশীলনের প্রথম দিনেই হাসান আলীর দিকে নজর ছিল সবার। ডানহাতি পেসার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ম্যাথু ওয়েডের সহজ ক্যাচ ছেড়ে ম্যাচটাই হারিয়েছেন। সোমবার তাকে নিয়েও বাড়তি খেটেছেন পাকিস্তানের ফিল্ডিং কোচ। এছাড়া ব্যাটিং, বোলিংয়ে প্রত্যেকেই নিজেদের প্রস্তুতি সেরেছেন।

১৯ নভেম্বর দুই দলের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। একদিনের বিরতি দিয়ে হবে বাকি দুই ম্যাচ। দুপুর ২টায় শুরু হবে প্রতিটি ম্যাচ। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে অনুশীলন।

সোমবার মিরপুরের একাডেমি মাঠে ঢুকেই দুপাশে পাকিস্তানের দুটি জাতীয় পতাকা পুঁতে দেন দলের এক সদস্য। বাংলাদেশে আগে কখনো কোনো সফরকারী দলকে এভাবে নিজ দেশের পতাকা টানিয়ে অনুশীলন করতে দেখা যায়নি। পাকিস্তান কেন এমন করল? দলটির মিডিয়া ম্যানেজার ইব্রাহিম বাদিস জানান, ‘এটা তাদের ঐতিহ্যের অংশ। সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপ খেলতে গিয়ে সেখানেও অনুশীলন চলেছে জাতীয় পতাকা সাক্ষী রেখে।’

সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে অনুশীলনে পাকিস্তানের শাহিন শাহ আফ্রিদি এবং মোহাম্মদ রিজওয়ানকে দেখা যায় পাকিস্তানের দুটি পতাকা কাঁধে করে নিয়ে আসতে। এরপর পতাকা দুটি অনুশীলনের মূল এলাকার পাশে পুঁতে দিয়ে খেলোয়াড়রা সেরেছিলেন প্রস্তুতি। এরপর দলের কোচ সাকলায়েন মুশতাক ব্যাখ্যা করেন এভাবে ‘এই দল পুরো দেশের (পাকিস্তানের) প্রতিনিধিত্ব করছে। দেখেই মনে হচ্ছে দেশের ২২ কোটি লোক যেন এক হয়ে আমাদের জন্যে গলা ফাটাচ্ছে।’

পাকিস্তান বধের ছক কষছে টাইগাররা। সেই পরিকল্পনায় সোমবার মিরপুরের একাডেমি মাঠে পাকিস্তানের অনুশীলন শেষে শেরে বাংলায় প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলতে নেমে পড়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। কুড়ি ওভারের এই ম্যাচে দুইভাগে ভাগ হয়ে খেলছে টাইগার ক্রিকেটাররা। মিরপুরের সেন্টার উইকেটে হয় এই ম্যাচটি।

তবে দুই দলে কারা খেলছেন, তা জানা যায়নি। না জানার কারণ গোপনীয়তা রক্ষার তাগিদে কোনো গণমাধ্যমকে মাঠে ঢুকতে দেয়নি বিসিবি। প্রশ্ন জাগা স্বাভাবিক কেন এই লুকোচুরি? টাইগারদের এই লুকোচুরি সেন্টার উইকেট সম্পর্কে পাকিস্তানকে কোনো ধারণা না দিতেই। সচরাচর অতিথি দলকে সিরিজ শুরুর আগে সেন্টার উইকেট দেখতে দেয়া হয়। প্র্যাকটিসও করে অনেকে। তবে সফরকারী দলকে উইকেট দেখতে দিতেই হবে কিংবা প্র্যাকটিস করতে দিতে হবে- আইসিসির পক্ষ থেকে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। তাই বাংলাদেশও এবার সেই পথেই হাঁটছে।

গতকাল এক ভিডিও বার্তায় টাইগার পেসার তাসকিন বলেন, ‘সত্যি বলতে আশা অনুযায়ী এবারের বিশ্বকাপে আমাদের দলগত পারফরম্যান্স ভালো হয়নি। কিন্তু এটা এখন অতীত। পাকিস্তান সিরিজে নতুন করে শুরু করতে চাই। অবশ্যই কঠিন হবে। আমাদের সেরাটা দিয়ে ভালো কিছু করতে চাই।’ তাসকিনের ব্যাখ্যা, ‘কোনো সন্দেহ ছাড়াই পাকিস্তান টি-টোয়েন্টিতে বিশ্বের শীর্ষ একটি দল। বিশ্বকাপে তারা দারুণ খেলেছে। দুর্ভাগ্যবশত সেমিফাইনালে হেরে গেছে। কিন্তু তারা সব বিভাগেই ভালো করছে। তাদের সঙ্গে ভালো করতে হলে আমাদেরও সব বিভাগেই ভালো করতে হবে। এটা নিয়ে আমরা কাজ করছি। আশা করছি দেশকে ভালো কিছু উপহার দিতে পারব। সহজ হবে না, কিন্তু আমরা আশাবাদী।’

রি-এসএস/ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *