ক্যাচ ফেলে ক্ষমাপ্রার্থনা পাকিস্তানি বোলার হাসানের


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে পাকিস্তান হেরে যাওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন বোলার হাসান আলি।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার ম্যাথু ওয়েডের ক্যাচ ফেলার পর থেকেই তার সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা শুরু হয়। এর প্রেক্ষিতে শনিবার (১৩ নভেম্বর) টুইট করেছেন হাসান। তার ওই টুইটটি আবারও পোস্ট করে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের আরেক সদস্য ফখর জামান বলেছেন, লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।

শনিবার হাসান টুইটারে বলেন, আমার পারফর্ম্যান্সের কারণে সবাই ব্যথিত হয়েছেন। আমি আপনাদের আশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছি। এ ব্যাপারে আমার চেয়ে বেশি দুঃখে আর কেউ নেই। তবে আমার কাছ থেকে আশা করা বন্ধ করবেন না। যতদিন পারি পাকিস্তান ক্রিকেট দলের হয়ে লড়তে চাই। সে কারণে আবারও কঠোর পরিশ্রম শুরু করছি। নিজেকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে চাই। আপনাদের প্রতিক্রিয়ার জন্য ধন্যবাদ। কেননা এটি আমার জন্য জরুরি।

এর কিছুক্ষণ পর সেই বার্তা রি-টুইট করেন ফখর জামান। তিনি লেখেন, বন্ধু তুমি একজন চ্যাম্পিয়ন। তোমার মতো পরিশ্রম, জেদ ও দৃঢ়তা দেখাতে পারে- এমন ক্রিকেটার এ পৃথিবীতে খুব বেশি নেই। মাথা উঁচু করে রাখো। আমরা তোমাকে নিয়ে গর্বিত।

গত বৃহস্পতিবার সেমিফাইনালে শাহিন আফ্রিদির বলে ম্যাথু ওয়েডের ক্যাচ ফেলে দেন হাসান আলি। এরপর তিন বলে ছক্কা মেরে অস্ট্রেলিয়াকে ফাইনালে আনেন ওয়েড।

ডি- এইচএ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *