ট্রল করা এখন ফ্যাশন হয়ে গেছে: প্রসেনজিৎ


ভারতের জনপ্রিয় তারকা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এখন শুটিংয়ের কাজে ব্যস্ত। করোনা মহামারির কারণে দেড় বছর কাজ না থাকায় অনেকেই মনে করেছেন, বিগত সময়ের ক্ষতি পুষিয়ে নিতেই তিনি এখন শুটিংয়ের কাজ করছেন। সে রকম প্রশ্নই কলকাতার এক সাংবাদিক করেছেন। জবাবে তিনি বলেছেন, এগুলো আগে থেকেই ঠিক করা ছিল।

কলকাতার সাংবাদিক প্রসেনজিৎকে প্রশ্ন করেন সাম্প্রতিক খাবার বিষয়ক অ্যাপ বিতর্ক সম্পর্কে। উত্তরে তিনি বলেন, ট্রল করা এখন বোধহয় ফ্যাশন হয়ে উঠেছে। আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় বাস্তব একটি সমস্যা সম্পর্কে বলেছিলাম। কেউ দূরে বসে বয়স্ক মা-বাবার জন্য খাবার অর্ডার করছেন, সেটি এলো না। ঘরে অসুস্থ ব্যক্তির জন্য ওষুধ অর্ডার কররৈন, সেটি না পেলে মানুষজন সমস্যার মুখোমুখি পড়বেন। সে কথাই আমি বোঝাতে চেয়েছি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

লকডাউন পার করে আবারও রঙিন পর্দায় আসার অনুভূতি সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে ওই সময় আমি মানসিকভাবে সুখী ছিলাম না। মহামারিতে প্রচুর হোমওয়ার্ক করেছি। নিজের ভুলগুলোও সংশোধনের চেষ্টা করেছি। মহামারির মধ্যে প্রথমে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের ‘অভিযান’ সিনেমার শুটিং করেছি। সে সময় আবিষ্কার করি, আমার মধ্যে ‘আমিটাই’ যেন হারিয়ে গেছে।

প্রসেনজিৎ আরও বলেন, দেব ও জিৎ প্রযোজিত সিনেমায় অভিনয় আমার ইতিবাচক পদক্ষেপ। কেননা আমি অনেক দিন থেকেই একটি ধারণা ভাঙতে চেয়ে আসছি। অনেকে মনে করেন, আমি নির্দিষ্ট কিছু মানুষের সঙ্গে কাজ করি।

ডি- এইচএ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *