স্বামীকে জেলে পাঠিয়ে হাসপাতালে পুনম পান্ডে


বলিউডের বিতর্কিত নায়িকা পুনম পাণ্ডেকে তার স্বামী মারধর করেছেন। তার এমনই অভিযোগের ভিত্তিতে পুনমের স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ। স্বামীকে পুলিশ নিয়ে যাওয়ার পরই পুনম ভর্তি হোন হাসপাতালে।

ভারতীয় গণমাধ্যমে মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, স্বামীর বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ করেন পুনম। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার পুনমের স্বামী স্যাম বম্বকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুনম আপাতত হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

স্বামীর বিরুদ্ধে এবারই প্রথম মারধরের অভিযোগ তুললেন না পুনম। গত বছর সেপ্টেম্বরে একই অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। বিয়ের ঠিক ২১ দিনের মাথায় স্বামীর বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ এনেছিলেন। গোয়ায় হানিমুনে দিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে পুলিশে এফআইআরও দায়ের করেন এই বিতর্কিত নায়িকা। টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকার পুনম বলছিলেন, স্যামের সঙ্গে আমার একটা কথা কাটাকাটি হয়। যা দ্রুতই মারাত্মক আকার নেয়। এরপরই ও আমায় মারতে শুরু করে। আমার গলা টিপে ধরে। আমার মনে হচ্ছিল আমার দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়ে যাবে। আমার মুখে ঘুসি মারে, চুল ধরে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়, এরপর আমার খাটের কোণায় আমার মাথা ঠুকে দেয়। এতেও থামেনি! আমার শরীরের উপর হাঁটু গেড়ে বসে আমার ওপর নির্যাতন চালায়।

সে অভিযোগের পর সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই সব মনোমালিন্য ভুলে আবারও সুখের সংসার পাততে প্রস্তুত হয়ে গিয়েছিলেন পুনম। তিনি বলেছিলেন, আমরা নিজেদের মধ্যে তিনি বলেছিলেন, আমরা নিজেদের মধ্যে সব মনোমালিন্য ভুলে আবারও একজোট হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বলতে পারেন, আমরা আবার এক হয়ে গেলাম। আসলে কী জানেন, আমরা একে অপরকে এতটাই ভালোবাসি, আসলে পাগলের মতো ভালোবাসি… তাই। আর সত্যি বলতে বলুন না, কোন বিয়েতে চড়াই-উতরাই থাকে না?

আর- এসআর / ডি- এইচএ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *