বিমান দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন গায়িকা


ব্রাজিলের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মারিলিয়া মেনডোনসা। একটি গানের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মিনাস জেরাইস রাজ্যে যাচ্ছিলেন তিনি। বিমানে উঠে নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন মিরিলিয়া। যেখানে বিমানে বসে সেখানকার খাবারের আনন্দ নিতে দেখা গিয়েছিলো তাকে। কিন্তু মিরিলিয়া কি জানতেন এটিই তার শেষ খাবার। আর এই যাত্রার মধ্যেই তিনি চলে যাবেন পরলোকে। হয়তো একেই বলে ভাগ্য।

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) মিনাস জেরাইস রাজ্যে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। সে সময় মিরিলিয়ার পাশাপাশি তার ম্যানেজার ও সহযোগী, বিমানচালক এবং সহকারী বিমানচালকও নিহত হন। গায়িকার দফতরের তরফে জানানো হয়েছে- বিমানযাত্রীদের কাউকেই বাঁচানো যায়নি। দুর্ঘটনার কারণ জানতে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে।

জানা যায়, বিমানের চাকা মাটি ছোঁয়ার আগে একটি বৈদ্যুতিক তারে ধাক্কা খায়। এরপরই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন পাইলট। আর তাতেই মাটিতে আছড়ে পড়ে বিমানটি। কান্ট্রি ঘরানার গান গেয়ে বেশ পরিচিতি লাভ করেছিলেন মারিলিয়া। ২০১৯ সালে লাতিন গ্র্যামি পুরস্কারও পান তিনি।

উল্লেখ্য, ব্যর্থ সম্পর্কের বিষয়ে নারীদের অভিজ্ঞতার ওপর ফোকাস করার জন্য মেরিলিয়া মেনডোনকা জনপ্রিয় ছিলেন। কিশোর বয়সে গান গাওয়া শুরু করেন তিনি। ২০১৬ সালে জাতীয়ভাবে তারকা হয়ে ওঠেন। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে কনসার্ট বন্ধ হয়ে গেলে তিনি অনলাইনে গান গাওয়া শুরু করেন। তার গান ইউটিউবে একসঙ্গে লাইভে দেখেন ৩০ লাখ ৩০ হাজার দর্শক। ২০২০ সালে ইউটিউবে সর্বোচ্চ সংখ্যক গান শোনা হয়েছে যাদের, তার মধ্যে তিনি অন্যতম।

রি-এসআর/ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *