পূজায় যেখানে ভালোমন্দ রান্না হবে সেখানেই যাব: জয়া


আজ ষষ্ঠী। দেবী দুর্গাকে বোধনের দিন আজ। সায়ংকালে বিহিত পূজার মাধ্যমে অধিষ্ঠিত হবেন তিনি। আর এর সঙ্গেই শুরু হবে বাঙালি সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা।

দেবী দুর্গার অন্য সব ভক্তদের পাশাপাশি দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানও পূজা নিয়ে উৎফুল্ল।এবারের পূজায়ও কলকাতায় থাকবেন এ অভিনেত্রী।

জয়া আহসান বলেন, পূজা মানেই আড্ডা রূপেণ সংস্থিতা! বন্ধুদের বাড়ি যাওয়া, মন খুলে কথা, হাসাহাসি। কিন্তু পেটপূজা ছাড়া আড্ডা হয় না। পূজায় বেশ কিছু বন্ধুর বাড়ি যাওয়ার নেমন্তন্ন ইতিমধ্যেই পেয়ে গিয়েছি। তাই কোথায় আড্ডা দেব, তা নিয়ে আলাদা করে চিন্তা করতে হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আমি খুবই খাদ্যরসিক। অভিনয় করলেও খাওয়াদাওয়ায় কোনও রকম বিধিনিষেধ নৈব নৈব চ। যখন যা ইচ্ছে, তাই খেয়ে নিই। পূজায়ও ভালমন্দ খাবার চাই-ই চাই! যে দিন যে বন্ধুর বাড়িতে ভালমন্দ রান্নাবান্না হবে, সে দিন সেখানেই গিয়ে হাজির হব। তবে দিনভর যা-ই খাই, যতই খাই, শেষ পাতে মিষ্টি লাগবেই আমার।

পূজার কলকাতা নিয়ে জয়া বলেন, কলকাতা আমার প্রাণের শহর। ভালবাসার শহর। পূজায় সেই চেনা শহর যেন একটু অচেনা হয়ে যায়। কোনও প্রিয় মানুষ আচমকা সেজে উঠলে যেমন অবাক লাগে, শারদ-কলকাতাও যেন তা-ই। চার দিকে কত আলো, মাইকে অনবরত গান, পথঘাট ছেয়ে থাকা ছাতিমের মিষ্টি গন্ধ। রাতারাতি আরও সুন্দরী কলকাতা। অনেকগুলো পূজাই কলকাতায় কাটিয়েছি। এ বারও আমি কলকাতায়। পূজার চারটে দিন নিজের মতো করে কাটাব।

ডি-এফবি



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *