মাদক মামলায় পরী মনির জামিনের আবেদন


রাজধানীর বনানী থানায় দায়ের করা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় আলোচিত সমালোচিত চিত্রনায়িকা পরী মনির জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। রবিবার (১০ অক্টোবর) পরী মনির পক্ষে তার আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সৌরভী আদালতে এ জামিনের আবেদন করেন। পরীমনি আদালতে হাজির হলে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালতে এ জামিন আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। পরীমনি রাস্তার জ্যামে থাকায় আদালতে আসতে দেরী হচ্ছে বলে জানান তার আইনজীবী।

আদালত সূত্রে জানা যায়, তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করা পর্যন্ত জামিনে ছিলেন আলোচিত চিত্রনায়িকা পরী মনি। তবে গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরী মনিসহ তার দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট জমা দেন। রবিবার আদালতে মামলার দিন ধার্য থাকায় চার্জশিটটি মামলা সংশ্লিষ্ট আদালতে উপস্থাপন করবেন। তাই জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ফের জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন পরী মনি।

এর আগে মাদক মামলায় গ্রেফতারের ২৬ দিন পর গত ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত পরী মনিকে নারী, শারীরিক অসুস্থতা ও অভিনেত্রী এই তিনটি বিবেচনায় জামিনের আদেশ দেন। পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না করা পর্যন্ত ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় তার এ জামিন মঞ্জুর করা হয়। পরের দিন তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পান।

গত ৪ আগস্ট বিকেলে বনানীর বাসায় প্রায় চার ঘণ্টা অভিযান শেষে পরীমনিসহ তিনজনকে দেশি বিদেশি মদের বোতল ও এলএসডি মাদকসহ আটক করা হয়। পরে বনানী থানায় র‍্যাব বাদী হয়ে পরী মনি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করে। এ মামলায় প্রথম দফায় ৫ আগস্ট চারদিন এবং ১০ আগস্ট দ্বিতীয় দফায় দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড শেষে ১৩ আগস্ট পরী মনিকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর ১৬ আগস্ট তাকে তৃতীয় দফায় ফের পাঁচ দিনের রিমান্ড চান সিআইডি। এ আবেদনে ১৯ আগস্ট শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আর- আরএ / ডি- এইচএ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *