রবিবার রাতে ব্রাজিল আর সোমবার ভোরে আর্জেন্টিনা


কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে রবিবার রাত ৩টায় কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলতে নামবে ব্রাজিল। অন্যদিকে একই দিন ভোর ৫টা ৩০ মিনিটে শক্তিশালী উরুগুয়ের বিপক্ষে খেলতে নামবে আর্জেন্টিনা।

এখন পর্যন্ত লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইয়ে নয়টি ম্যাচ খেলে নয়টি ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে ব্রাজিল। এখন কলম্বিয়ার বিপক্ষে যদি মাচটিতে ব্রাজিল জয় তুলে নিতে পারে তাহলে তারা টানা ১০টি ম্যাচে জয় তুলে নিতে পারবে। আর এর মাধ্যমে ব্রাজিলের নাম বসবে স্পেন, জার্মানি ও মেক্সিকোর পাশে। এ তিনটি দেশই বিশ্বকাপের একটি আসরের বাছাইয়ে টানা ১০টি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছিল।

জার্মানি বাছাই পর্বে টানা ১০টি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছিল ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে। এর আগে স্পেন ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় হওয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে টানা ১০টি ম্যাচে জয় পেয়েছিল। অপরদিকে মেক্সিকো টানা ১০টি ম্যাচে জয় পেয়েছিল ২০০৬ সালের জার্মানি বিশ্বকাপে। এখন বিশ্বকাপের সবচেয়ে সফল দেশ, পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলও এ কীর্তি গড়তে পারবে।

যদিও বিশ্বকাপ বাছাইয়ে টানা ১১টি ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে কয়েকদিন আগে নতুন বিশ্বকরেকর্ড গড়েছে অস্ট্রেলিয়া। এখন ব্রাজিলের সামনে সুযোগ আছে অস্ট্রেলিয়াকে পেছনে ফেলে নতুন রেকর্ডের মালিক হওয়ার। তবে এজন্য এখন ব্রাজিলের তাকিয়ে থাকতে হবে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের দিকে।

লাতিন আমেরিকা অঞ্চলে টানা নয়টি ম্যাচে জয় পেয়ে ইতোমধ্যেই এ অঞ্চলে রেকর্ড গড়েছে ব্রাজিল। এখন তাদের সুযোগ আছে পুরো বিশ্বের মধ্যে বাছাইপর্বে রেকর্ড গড়ার। তবে এজন্য এখন ব্রাজিলকে তাদের জয়ের ধারা অব্যহত রাখতে হবে। অপরদিকে অস্ট্রেলিয়াকে কোনও ম্যাচে ড্র করতে হবে বা হারতে হবে।

ব্রাজিল বাছাইয়ে তাদের সর্বশেষ ম্যাচে খেলতে নামে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে। নেইমার বিহীন সে ম্যাচটিতে সেলেসাওরা প্রথমে গোল হজম করলেও পরবর্তীতে তারা ম্যাচটি জিতে নেয় ৩-১ গোলের ব্যবধানে।

বর্তমানে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয়স্থানে থাকা ব্রাজিল কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটিতেই জয়ের দিক দিয়ে ফেবারিট। ফিফার র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৬ নাম্বার স্থানে থাকা কলম্বিয়া ব্রাজিলের সঙ্গে র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকার সঙ্গে সঙ্গে শক্তির বিচার ও জয়ের দিক দিয়েও পিছিয়ে আছে। ব্রাজিল ও কলম্বিয়া এখন পর্যন্ত ৩৩ বার একে অপরের বিপক্ষে খেলেছে। এর মধ্যে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা জয় তুলে নিয়েছে ২০টি ম্যাচে। হেরেছে মাত্র তিনটি ম্যাচে । আর বাকি ১০টি ম্যাচ ড্র হয়েছে। এ বছরের শুরুতে সর্বশেষবার মুখোমুখি হয় দুই দল। সেই ম্যাচটিতে ব্রাজিল জয় পায় ২-১ গোলের ব্যবধানে।

কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটিতে শক্তিশালী দল নামাতে যাচ্ছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার, থিয়াগো সিলভা, এদার মিলিতাও, মারকুইনহোস ও নেইমার মিলে কলম্বিয়াকে যে কোন সুযোগ দেবেন না এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

অপরদিকে লাতিন আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে থাকা আর্জেন্টিনাকে দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। কারন তাদের প্রতিপক্ষ হলো উরুগুয়ে।

আর্জেন্টিনা বাছাইপর্বে তাদের শেষ ম্যাচে খেলতে নামে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে। সে ম্যাচটিতে আর্জেন্টিনা অনেক এগিয়ে থাকলেও তারা প্যারাগুয়ের বিপক্ষে কোন গোল তুলে নিতে পারেনি। ফলে ম্যাচটি ০-০ গোলে ড্র হয়। প্যারাগুয়ের বিপক্ষে কোন গোল না পাওয়ায় প্রায় দুই বছর বাদে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছে আর্জেন্টিনা।

তবে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ড্র করলেও আর্জেন্টিনার বড় কোন ক্ষতি হয়নি। তারা এখনো পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয়স্থানটি ধরে রাখতে সমর্থ হয়েছে। তাছাড়া এ ড্রয়ে আর্জেন্টিনা টানা ২৩টি ম্যাচে অপরাজিত আছে। কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে যেন এক অপ্রতিরোধ্য দলে পরিণত হয়েছে আর্জেন্টিনা। রক্ষণভাগ খুব বেশি শক্ত হওয়ায় এবার কোপা আমেরিকার শিরোপা জয় করেছে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে তারা এখন পর্যন্ত নয়টি ম্যাচ খেলে গোল হজম করেছে মাত্র ছয়টি।

এই রক্ষণভাগ ভেদ করে এখনো কোন দেশ আর্জেন্টিনাকে হারাতে পারেনি। এখন উরুগুয়ে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কি সেই দুর্গ ভাঙতে পারবে এটিই দেখার বিষয়। তবে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের শেষ পাঁচটি ম্যাচের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে শেষ পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে চারটিতেই আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কোন গোল করতে পারেনি লুইস সুয়ারেজের উরুগুয়ে।

এখন পর্যন্ত দুই দল মুখোমুখি হয়েছে ১৯ বার। এর মধ্যে আর্জেন্টিনা জয় তুলে নিয়েছে ১২টি ম্যাচে। হেরেছে ৪টি ম্যাচে। আর বাকি তিনটি ম্যাচ ড্র হয়েছে। সর্বশেষবার দুই দল মুখোমুখি হয় কোপা আমেরিকায়। সেবার উরুগুয়েকে আর্জেন্টিনা হারিয়ে দেয় ১-০ গোলের ব্যবধানে।

এখন বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আজকের ম্যাচটিতেও এগিয়ে থাকবে আর্জেন্টিনা। তারা এবারের বাছাইয়ে এখন পর্যন্ত ৯টি ম্যাচ খেলে পাঁচটি ম্যাচে জয় পেয়েছে। অপরদিকে ড্র করেছে চারটি ম্যাচ।

রি-এস/ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *