অ্যাসেজের জন্য ‘শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন’ দিল ইসিবি


সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অ্যাসেজ খেলতে যেতে রাজি হয়েছে ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া সফরে যেতে পারেন জো রুটরা। ইংল্যান্ডের তরফ থেকে অ্যাসেজ আয়োজনের সবুজ সংকেত দিল অস্ট্রেলিয়া। তবে তার জন্য রাখা হয়েছে বেশ কিছু শর্ত। কারণ শর্তসাপেক্ষে এই সিরিজের অনুমোদন দিয়েছে ইসিবি বোর্ড। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

ইসিবির একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে ‘চমৎকার অগ্রগতি’ হয়েছে, এবং এটি সফরের জন্য ‘শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন’ দেওয়া হয়েছে, যার জন্য এখন একটি দল নির্বাচন করা হবে। যে শর্তগুলি এখনও সন্তুষ্ট রয়েছে সে বিষয়ে আর কোনো বিশদ বিবরণ দেওয়া হয়নি, এর বাইরে লক্ষ্য ছিল আগামী দিনগুলিতে সকল সমস্যা গুলো সমাধান করা।

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অ্যাসেজ খেলতে যেতে রাজি হয়েছে ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া সফরে যেতে পারেন জো রুটরা। ইংল্যান্ডের তরফ থেকে অ্যাসেজ আয়োজনের সবুজ সংকেত দিল অস্ট্রেলিয়া। তবে তারজন্য রাখা হয়েছে বেশ কিছু শর্ত। কারণ শর্তসাপেক্ষে এই সিরিজের অনুমোদন দিয়েছে ইসিবি বোর্ড।

ইসিবির একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে ‘চমৎকার অগ্রগতি’ হয়েছে, এবং এটি সফরের জন্য ‘শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন’ দেওয়া হয়েছে, যার জন্য এখন একটি দল নির্বাচন করা হবে। যে শর্তগুলি এখনও সন্তুষ্ট রয়েছে সে বিষয়ে আর কোনো বিশদ বিবরণ দেওয়া হয়নি, এর বাইরে লক্ষ্য ছিল আগামী দিনগুলিতে সকল সমস্যা গুলো সমাধান করা।

অ্যাসেজ শুরুর আগে অস্ট্রেলিয়ার কোভিড প্রোটোকল নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল। কঠিন কোয়ারেন্টাইনের জন্য অস্ট্রেলিয়াতে যেতে রাজি হচ্ছিলেন না ব্রিটিশ ক্রিকেটাররা। পরে দুই দলের তরফ থেকে বিতর্কিত মন্তব্যে এই সফরের জটিলতা বেড়ে যায়। এমন সময় কঠোর কোভিড-১৯ প্রোটোকল নিয়ে ইংল্যান্ডের উদ্বেগ দূর করতে এগিয়ে এসেছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডে, ইসিবি-র পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নিতে খেলোয়াড়দের এই সপ্তাহের শেষ পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে। যদি প্রথম সারির খেলোয়াড়রা ভ্রমণে রাজি হয় তবেই দল সফরে যাবে।

সম্প্রতি ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়দের সঙ্গে দুটি পৃথক আলোচনায় বোঝা যায় লকডাউন এবং পরিবারের জন্য কোয়ারেন্টিন পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ ছিল প্রধান বিষয়। তবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে কয়েকদফা আলোচনা পর কঠোর কোয়ারেন্টিন নীতি কিছুটা নমনীয় করা যায় কি-না তা নিয়ে ক্রিকেটারদের আশ্বস্ত করেছে ইসিবি। জানা গেছে, রুটের নেতৃত্বেই অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবে ইংল্যান্ড দল।

বলা হয়েছে, ইংল্যান্ডের খেলোয়াড় হিসেবে একমাত্র উইকেটরক্ষক জস বাটলারই সফরে আসতে রাজি নাও হতে পারেন। আগেই সফর নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। এছাড়া এবারের অ্যাসেজে মইন আলিকেও পাবে না ইংল্যান্ড। সম্প্রতি টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা করেছেন। মানসিক স্বাস্থ্যের কথা ভেবে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্রিকেট থেকে বিরতিতে রয়েছেন বেন স্টোকস।

ডি-ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *