আফগান ক্রিকেটে অনিশ্চয়তার মেঘ – Bhorer Kagoj


আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকে সরিয়ে সশস্ত্র সংগঠন তালেবান ক্ষমতা নেয়ার পর থেকে এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডে। তালেবান ক্রিকেট বোর্ডের ওপর পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ নিতে চাইছে। এজন্য বোর্ড চেয়ারম্যান ও সিইও-এর জায়গায় নিজস্ব লোক বসিয়েছে তারা।

শোনা যাচ্ছে, আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আফগানিস্তান দলকে তালেবান বাধ্য করবে তাদের নিজস্ব পতাকার অধীনে খেলতে। মানে আফগানিস্তানের ৩ রঙের পতাকার বদলে বিশ্বকাপে তালেবানের পতাকা ওড়াতে চাইবে তারা। আর এটি করলে আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে আইসিসি। এমন খবরই জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ।

সব মিলিয়ে আফগান ক্রিকেটের আকাশে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তার মেঘ। আফগানিস্তানের বিষয়ে বিশ্বকাপ শেষে বা বিশ্বকাপের আগেই বৈঠকে বসতে পারে আইসিসি। সেখানে তাদের কার্যক্রমের ব্যাপারটি তোলা হবে। তাছাড়া আফগানিস্তানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রশ্নও উঠবে। আইসিসির ১৭ সদস্যের মধ্যে ১২ সদস্য যদি তাদের বিপক্ষে ভোট দেয়, তাহলেই নিষেধাজ্ঞার খড়গ নেমে আসবে আফগান ক্রিকেটে।
আফগান নারীদের ক্রিকেট খেলায় নিষেধাজ্ঞা থেকে শুরু করে নতুন বোর্ড চেয়ারম্যান নিয়োগসহ কিছু বিষয় নিয়ে বেশ বেকায়দায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। যখন আগের সমস্যাগুলোই তারা ঠিকমতো কাটিয়ে উঠতে পারছিল না, তখন নতুন করে আবার টালমাটাল অবস্থা তৈরি হয়েছে আফগান ক্রিকেটে। আর এটি তৈরি হয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী হামিদ শিনওয়ারি বরখাস্ত হওয়ার মাধ্যমে।

জানা গেছে, দুদিন আগে এক দল আফগান যোদ্ধা দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের অফিসে প্রবেশ করে। তারা প্রধান নির্বাহী পরিবর্তনের আদেশ দেয়। শিনওয়ারির বদলি হিসেবে নাসেবুল্লাহ খানকে নতুন সিইও হিসেবে নিয়োগ দেয় তারা। গতকাল বরখাস্তকৃত সিইও শিনওয়ারি ক্রিকবাজকে জানান, গতকাল আমাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনার পেছনে আফগান সরকারের সহযোগী হাক্কানি গ্রুপ জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চলতি বছরের ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতা দখলের পর হামিদ শিনওয়ারি ছিলেন আফগান ক্রিকেট বোর্ডের আন্তর্জাতিক মুখপাত্র। সম্প্রতি আফগানিস্তানে নারীদের ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে অস্ট্রেলিয়া তাদের সঙ্গে টেস্ট আয়োজন না করার হুঁশিয়ারি দেয়। তখন শিনওয়ারি বিশ্ব ক্রিকেটের কাছে আকুল আবেদন জানান।

এদিকে বোর্ড চেয়ারম্যান আজিজুল্লাহ ফাজলি তার পদেই বহাল রয়েছেন। আফগানিস্তান ক্ষমতা দখলের পর পরই আজিজুল্লাহ ফাজলিকে তারা চেয়ারম্যান পদে বসায়।

ডি- এইচএ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *