ঢাকায় পৌঁছেছে নিউজিল্যান্ড দল – শেয়ার বিজ


ক্রীড়া ডেস্ক: বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ঢাকায় পৌঁছেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। অকল্যান্ড থেকে রওনা দিয়ে আজ মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে ঢাকায় পৌঁছায় সফরকারীরা।

ঢাকায় পা রেখে বিমানবন্দরের কাজ সেরে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে উঠেছেন নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটারেরা। আগামী তিন দিন হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকবেন তাঁরা। কোয়ারেন্টিন শেষে নেমে পড়বেন প্রস্তুতিতে।

মূল দল ঢাকায় আসার চার দিন আগে দুই কিউই ক্রিকেটার ঢাকায় এসেছেন। তাঁরা হলেন অলরাউন্ডার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও ওপেনার ফিন অ্যালেন। ইংল্যান্ডে ‘দ্য হানড্রেড’ টুর্নামেন্ট খেলে সরাসরি ঢাকা এসেছেন দুই নিউজিল্যান্ড তারকা। আজ ঢাকায় এসেছেন নিউজিল্যান্ড স্কোয়াডের ১৩ জন।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য এই সিরিজে লড়বে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। যদি সফরের কিউই দলে বিশ্বকাপের একজনও নেই। এই সফরে নিউজিল্যান্ড দলকে নেতৃত্বে দেবেন সবশেষ ২০১৭ সালে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি খেলা টম ল্যাথাম।

ঢাকায় আসার আগে বাংলাদেশ সফর নিয়ে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান হেনরি নিকোলস বলেন, ‘আসলে তাদের (অস্ট্রেলিয়া) বাংলাদেশে খেলতে দেখা আমাদের জন্য ভালো হয়েছে। আমরা এখানে (নিউজিল্যান্ডে) যে টি-টোয়েন্টি খেলি, সম্ভবত সেখানের ক্রিকেট ভিন্ন। কম রানের ম্যাচ হয় ও উইকেট কিছুটা চ্যালেঞ্জিং। সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার দিকে তাকালে, আমার মনে হয় তাদের সর্বোচ্চ রান ছিল ১৩০ (১২১), আর এখানে (নিউজিল্যান্ডে) ১৮০ রান হচ্ছে মানদণ্ড। তাই, ব্যাটসম্যান হিসেবে মাথায় রাখতে হবে সেটা এবং মনে রাখতে হয়, এই কন্ডিশন কিছুটা কঠিন।’

পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে ১ সেপ্টেম্বর। পরের চারটি ম্যাচ হবে যথাক্রমে ৩, ৫, ৮ ও ১০ সেপ্টেম্বর। সবগুলো ম্যাচই হবে দিবারাত্রির। ম্যাচগুলো হবে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। ম্যাচগুলো শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়।

অস্ট্রেলিয়ার মতো এই সিরিজেও থাকবে কড়া নিরাপত্তা। জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই অনুষ্ঠিত হবে সবগুলো ম্যাচ। দুই দলের টিম মেম্বারসহ সব সদস্যরা পুরো সিরিজে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে কঠোর সুরক্ষা বলয়ে থাকবেন।

নিউজিল্যান্ড দল : টম ল্যাথাম (অধিনায়ক), ফিন অ্যালেন, হামিশ বেনেট, টম ব্লান্ডেল, ডগ ব্রেসওয়েল, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, জ্যাকব ডাফি, স্কট কুগেলাইন, কোল ম্যাকনকি, হেনরি নিকোলস, এজাজ প্যাটেল, রাচিন রবীন্দ্র, বেন সিয়ার্স, ব্লেয়ার টিকনার, উইল ইয়াং।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *