টেস্টে দুই ধাপ এগোলেন রুট


ক্রিকেট মাঠে ব্যাট হাতে সাদা পোশাকে ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট রীতিমতো স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন। পাঁচ টেস্টের সিরিজের দুই টেস্ট শেষে দল ১-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়লেও ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টেই সেঞ্চুরি করেছেন ইংলিশদের দলপতি। এমন দুর্দান্ত পাফরম্যান্সের সুবাদে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন ধাপ এগোলেন রুট। ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ-পাকিস্তানের প্রথম টেস্টের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে বুধবার (১৮ আগস্ট) র‌্যাঙ্কিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করে আইসিসি। সেখানে এখন টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নম্বর ব্যাটসম্যান ইংল্যান্ড অধিনায়ক। এমনকি শীর্ষে থাকা নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসনের খুব কাছে পৌঁছে গেছেন রুট।

ভারতের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫ নম্বরে ছিলেন রুট। ট্রেন্ট ব্রিজে প্রথম টেস্টে ১০৯ ও ৬৪ রানের দুই ইনিংসের পর উঠে এসেছিলেন ৪ নম্বরে। এরপর লর্ডসে প্রথম ইনিংসে ১৮০ রানের সুবাদে এবার দুইয়ে পৌছাল রুট। সেই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ ও মারনাস লাবুশেনকে টপকে গেছেন তিনি। রুটের রেটিং পয়েন্ট এখন ৮৯৩। তালিকায় শীর্ষে থাকা উইলিয়ামসনের রেটিং ৯০১। তবে আপাতত নিউজিল্যান্ডের কোনো টেস্ট নেই। তাই রুটের যে ফর্ম, সেটি ধরে রাখতে পারলে উইলিয়ামসনকেও টপকে যাবেন তিনি। ক্যারিয়ারে এর আগে ২০১৫ সালের আগস্টে একবারই টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠেছিলেন রুট।

এদিকে রুটের সঙ্গে র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতির খবর পেয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। কিন্তু সম্প্রতি টেস্টে বাজে পারফরমেন্সর জন্য রেটিং পয়েন্ট খুইয়েছেন ভারতের দলপতি বিরাট কোহলি। সর্বশেষ ইংল্যান্ড-ভারতের লর্ডস টেস্টের পর র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে সেঞ্চুরি করে ম্যাচসেরা হওয়া লোকেশ রাহুলের। ১৯ ধাপ এগিয়ে ৩৭ নম্বরে উঠে এসেছেন ডানহাতি ভারতীয় ব্যাটসম্যান। রাহুলের উন্নতির দিনে অবনমন হয়েছে কোহলির। টানা সাত ইনিংস ফিফটিশূন্য থাকা ভারত অধিনায়ক সিরিজ শুরুর আগে ছিলেন ৪ নম্বরে, রেটিং ছিল ৮১২। প্রথম টেস্টের পরই পাঁচে নেমে গিয়েছিলেন। লর্ডস টেস্টের পর কোহলি পাঁচেই আটকে আছেন, তবে তার রেটিং পয়েন্ট আরো কমে এখন ৭৭৬ হয়েছে।

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিংস্টনে প্রথম টেস্টে ৩০ ও ৫৫ রান করেন বাবর আজম। তিনি এই পারফরম্যান্সের সুবাধে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই ধাপ এগিয়ে এখন তিনি আছেন অষ্টম স্থানে। এছাড়া ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে বোলারদেরও। লর্ডস টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়া জেমস অ্যান্ডারসন এক ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ৬ নম্বরে। উন্নতি হয়েছে মার্ক উড ও মোহাম্মদ সিরাজেরও। যথাক্রমে ৫ ও ১৮ ধাপ এগিয়ে তারা এখন পাশাপাশি ৩৭ ও ৩৮ নম্বরে।

ইংল্যান্ড-ভারতের দ্বিতীয় টেস্টের আগের দিনই রোমাঞ্চ ছড়িয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-পাকিস্তানের প্রথম টেস্ট। যেখানে পারফরম্যান্স দিয়ে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে পৌঁছেছেন জেসন হোল্ডার। দুই ধাপ এগিয়ে উইন্ডিজ অলরাউন্ডার এখন আছেন ৯ নম্বরে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সবচেয়ে কম বয়সি বোলার হিসেবে পাঁচ উইকেট শিকার করে ইতিহাস গড়া জেইডেন সিলসেরও উন্নতি হয়েছে। তিনি ৩৯ ধাপ এগিয়ে তালিকায় ৫৮ নম্বরে উঠেছেন।

এসএইচ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *