প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা


সিলেটে ৩০ আগস্ট শুরু হওয়ার কথা ছিল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। করোনার কারণে বাফুফে সাফ আয়োজন থেকে সরে গেলে টুর্নামেন্ট পিছিয়ে অক্টোবরে নেয়া হয়েছে। ৫ জাতির অংশ গ্রহণে আগামী ১ থেকে ১৩ অক্টোবর মালদ্বীপে অনুষ্ঠিতব্য সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে নেপাল।

রাউন্ড-রবিন লিগ ভিত্তিতে খেলা শেষে শীর্ষ দুটি দল ফাইনালে মুখোমুখি হবে। এবারের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ ৫ দেশ নিয়েই হচ্ছে। কারণ, ভুটান ফুটবল দলকে দেশটির সরকার বাইরে খেলতে যেতে অনুমতি দেয়নি। অন্যদিকে ফিফা থেকে নিষিদ্ধ আছে পাকিস্তান।

গ্রপপর্বে প্রতিটি দল চারটি করে ম্যাচ খেলবে। যেটাকে বলা হচ্ছে রাউন্ড রবিন লিগ। এখানে প্রতিটি দল সবার সঙ্গেই একটি করে ম্যাচ খেলবে। রাউন্ড রবিন লিগ শেষে পয়েন্ট টেবিলের দুই শীর্ষ দলকে নিয়ে সরাসরি ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত। আর সেখানে জয়ী দলই হবে এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গত ১২টি আসরের সর্বোচ্চ সফল দেশ হচ্ছে ভারত। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ সাতবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দুইবার ট্রফির স্বাদ পেয়েছে মালদ্বীপ। আর লাল-সবুজের প্রতিনিধিত্বকারীরা মাত্র একবার শিরোপা স্বাদ পেয়েছে। ২০০৩ সালে দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। এ ছাড়া একবার শিরোপা জিতেছে শ্রীলঙ্কা।

সম্প্রতি বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পেয়েছেন নাইজেরিয়া থেকে বাংলাদেশি হওয়া এলিটা কিংসলে। বাংলাদেশি হওয়ার পর থেকেই লাল-সবুজের জার্সি গায়ে জড়ানোর স্বপ্ন দেখছেন তিনি। তার সেই স্বপ্ন পূরণের জন্য ফিফা ও এএফসির সঙ্গে চিঠি চালাচালি করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। মাঠের বাইরের কাজ করছে বাফুফে, তবে সবুজ গালিচায় পারফরম্যান্স করে কোচ জেমি ডের নজরে আসতে হবে তাকে। আপাতদৃষ্টিতে যা মনে হচ্ছে, তাতে খুব শিগগিরই হয়তো বাংলাদেশ দলে দেখা যেতে পারে এ ফরোয়ার্ডকে। অক্টোবরে মালদ্বীপে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের দলে কোচ জেমি তাকে ডাকলে যেন কোনো আইনি জটিলতা না থাকে সে কাজগুলো আগেই সেরে রাখার উদ্যোগ নিয়েছে বাফুফে। সবকিছু ঠিকঠাকভাবে হলে হয়তো সাফ ফুটবলেই লাল-সবুজের জার্সি গায়ে জড়ানোর স্বপ্নপূরণ হবে এলিটার।

কিংসলের মতো ফরোয়ার্ডকে দেশের জার্সিতে খেলাতে চায় বাফুফে। সে জন্যই সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার উদ্যোগ বাফুফে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, এএফসি কাপের গ্রুপ পর্বে বসুন্ধরার জার্সিতে খেলার সুযোগ নেই কিংসলের। বসুন্ধরা পরের রাউন্ডে উঠলে তখন রেজিস্ট্রেশনের সময় না দিলে হয়তো খেলতে পারবে সে। তবে আমরা চেষ্টা করব ফিফা থেকে প্রয়োজনীয় অনুমতি আনতে, যাতে কিংসলেকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলানো যায়। ফিফার অনুমতি পেলেও তাকে খেলানো না খেলানোর বিষয়টি জেমি ডের ওপর নির্ভর করছে বলে জানান সোহাগ।

এবার সাফে ভালো ফলাফলের প্রত্যাশায় নিজেদের প্রস্তুত করতে সেপ্টেম্বরের কিরগিজস্তানে গিয়ে তিনটি প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা জামাল ভূঁইয়াদের। সেই ম্যাচগুলো খেলতে ঢাকায় একদিন কিংবা দুইদিন ট্রেনিং করার পরিকল্পনা ছিল বাফুফে ন্যাশনাল টিমস কমিটির। তবে কোচ জেমি ডের চাওয়া, একটু আগেভাগে গিয়ে কিরগিজস্তানেই অনুশীলন করতে। কোচের চাওয়া অনুযায়ী কিরগিজস্তানে গিয়ে জাতীয় দল যাতে অনুশীলন করতে পারে সেই চিন্তা করছে বাফুফে। কিরগিজস্তানের মাঠে ৫ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিনের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ৭ সেপ্টেম্বর স্বাগতিকদের বিপক্ষে খেলার পর ৯ সেপ্টেম্বর কিরগিজস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে খেলবেন জামাল ভূঁইয়ারা।

ঢাকায় না করে কিরগিজস্তানে গিয়ে অনুশীলন করার উদ্দেশ্যে হলো দীর্ঘ ভ্রমণ এবং করোনা প্রটোকল। এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেন, ‘যে তিনটি ম্যাচ খেলতে আমরা কিরগিজস্তানে যাব, সে তিনটি ম্যাচই আমাদের জন্য কঠিন। প্রায় ২৪-২৫ ঘণ্টার একটা লম্বা ভ্রমণ হবে। করোনা পরিস্থিতিতে কোভিড প্রটোকল সম্পন্ন করে এক দেশ থেকে আরেক দেশে যাওয়া এবং বিধিনিষেধের যে বিষয়গুলো আছে সেগুলো আমরা মাথায় রেখেছি। আমাদের চাওয়া হচ্ছে ২৭ আগস্ট প্রিমিয়ার লিগ শেষ হওয়ার পরে অন্তত দুটি দিন সময় দিয়ে আমরা ৩০ আগস্ট সেখানে চলে যেতে পারি। ৩১ আগস্ট থেকে আমাদের প্রয়োজনীয় ট্রেনিং যদি কিরগিজস্তানের মাঠে শুরু করতে পারি, তাহলে খেলার আগে আমরা ৫-৬ দিন ট্রেনিং করতে পারব, এটাই জেমির প্রধান চাওয়া। সেই আলোকে আমরা চেষ্টা করছি।’ কেন কিরগিজস্তানে অনুশীলন করতে চান সেটার ব্যাখ্যায় জেমির উত্তর, এখানে মাঠের অবস্থা খুব একটা ভালো না। তাই কিরগিজস্তানে গিয়ে অনুশীলন করলে ভালো হবে।’

এসএইচ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *