মেসিকে পেয়ে ফুলেফেঁপে উঠেছে ফরাসি ফুটবল


সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে নতুন ক্লাব পিএসজির হয়ে অনুশীলনে নেমে পড়েছেন লিওনেল মেসি। নেইমার, এমবাপ্পে, ডি মারিয়া- সবার সঙ্গে অনুশীলন করেছেন তিনি। তাদের সঙ্গে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই দেখা গেছে তাকে। নিজের দীর্ঘদিনের ক্লাব বার্সেলোনাকে ছাড়া এই প্রথম অন্য ক্লাবের হয়ে অনুশীলন করেছেন সাবেক বার্সা অধিনায়ক। তবে তার অনুশীলনে এর কোনো ছাপ ছিল না। নিজের চিরাচরিত ভঙ্গিতেই অনুশীলন করেছেন। মেসির বার্সা ছাড়ার খবরে ভীষণ কষ্ট পেয়েছিলেন তার স্ত্রী আন্তোনেলা রোকুজ্জো। তারা দুজন একসঙ্গে কেঁদেছিলেন। কিন্তু এখন সবই অতীত। মেসি এখন নতুন জায়গায় নতুন উদ্যমে ফিরছেন। আর মেসির আগমনের পর এখন ফুলেফেঁপে উঠছে ফরাসি ফুটবল। টিভি স্বত্ব না পাওয়া নিয়ে ফরাসি ক্লাবগুলোর লাভ অনেক কমে গিয়েছিল। কিন্তু মেসি আসার পর এখন পুনর্জাগরণ শুরু হয়েছে দেশটির ফুটবলে।

মেসির পিএসজিতে খুব সহজেই মানিয়ে নেয়ার অন্যতম কারণ হলো এই ক্লাবে রয়েছেন তার স্বদেশী ও জাতীয় দলের সতীর্থ ডি মারিয়া ও লিয়ান্দ্রো পারেদেস। তাছাড়া ক্লাবটির কোচ মারিসিও পচেত্তিনোও আর্জেন্টাইন। তার সহযোগীরাও আর্জেন্টাইন। আবার তার অন্যতম বড় বন্ধু ও সাবেক সতীর্থ নেইমার রয়েছেন এখানে। তারা একসঙ্গে বার্সেলোনায় খেলেছেন। নেইমার পিএসজিতে চলে এলেও মেসির সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল বেশ ভালো। তারা একসঙ্গে কয়েক দিন আগেও ইবিজাতে ঘুরে এসেছেন।

মেসির সঙ্গে আলাপে মুশগুল সার্জিও রামোস

আজ রাতে লিগ ওয়ানে সার্সবার্গের বিপক্ষে খেলতে নামবে পিএসজি। তবে এ ম্যাচে মেসি খেলবেন না। তার খেলার সম্ভাবনা রয়েছে আগস্টের শেষ দিকে। অথবা সেপ্টেম্বরে আন্তর্জাতিক ফুটবলের বিরতির পর। এদিকে মেসি আসার পর শুধু পিএসজি না পুরো ফরাসি লিগ ওয়ানই ফুলেফেঁপে উঠছে। মেসি এতদিন লা লিগায় থাকায় স্প্যানিশ লিগটির প্রতি মানুষের নজর ছিল। কিন্তু এখন সবার নজর লিগ ওয়ানের দিকে চলে এসেছে। একটি ক্লাবে বড় কোনো ফুটবলার এলে, সেই লিগটির অন্য ক্লাবগুলো ব্যাপারটি নিয়ে অতটা উচ্ছ্বাস দেখায় না। কিন্তু মেসি পিএসজিতে আসার পর লিগ ওয়ানের সব ক্লাবই খুশি হয়েছে। এমনকি বেশ কয়েকটি ক্লাবের প্রধান কোচরা পর্যন্ত প্রকাশ্যে বলেছেন, মেসি আসায় ফরাসি ফুটবলে অনেক বেশি উন্নতি ঘটবে।

অনুশীলনে এমবাপ্পে ও লিওনেল মেসি

বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ায় লা লিগার জনপ্রিয়তা এত বেশি ছিল যে লা লিগার খেলা ফেসবুকে দেখানো হত। এবারো লা লিগার খেলা বাংলাদেশে দেখা যাবে। লা লিগা তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে শুক্রবার এ বিষয়ে একটি পোস্ট দেয়। কিন্তু সাধারণ মানুষের এতে আগ্রহ ছিল না। অনেকেই কমেন্ট করছিল তাদের লা লিগার প্রতি এখন আগ্রহ নেই। সবাই এখন ফ্রেঞ্চ লিগ দেখবে। অনেকে আবার কমেন্টে লা লিগা কর্তৃপক্ষের নিয়মের সমালোচনা করছিল। কারণ নিয়মের বেড়াজালে পরেই মেসিকে বার্সা ছাড়তে হয়েছে। সব মিলিয়ে দক্ষিণ এশিয়া ও এশিয়ায় লা লিগার মার্কেট ভেলু অনেক কমে যাবে, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

অনুশীলনে ডি মারিয়ার সঙ্গে মেসি

এদিকে বার্সা ছাড়ার খবর জানার পর মেসি খুব ভেঙে পড়েন। সঙ্গে তার স্ত্রীও বিষয়টি নিয়ে মুষড়ে পড়েন বলে জানিয়েছেন মেসি। যদিও এখন সব কিছু আবার ঠিক হয়ে এসেছে। সেই সময়ের কথা জানিয়ে মেসি বলেন, ‘আমার বাবা বাসায় এসেছিলেন। তিনি সারা দিন (হুয়ান) লাপোর্তার সঙ্গে ছিলেন। যখন বাসায় এসে আমাকে সব জানান, তখন ওই মুহূর্তে আমি খুবই ভেঙে পড়েছিলাম। তবে আমাকে তখনই মানসিকভাবে প্রস্ততি নিতে হয়েছিল। আমি ও আমার স্ত্রী একসঙ্গে কেঁদেছি।’

মেসি পিএসজিতে আসার পর মাত্র এক মাসের মধ্যে নিজের দুটি স্বপ্ন পূরণ হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডি মারিয়া। ইএসপিএনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, তার স্বপ্ন ছিল কোপা শিরোপা জয় করা ও মেসির সঙ্গে একই ক্লাবে খেলা। এ দুই স্বপ্ন তার পূরণ হয়েছে।

এসএইচ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *