বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের প্রথম টি-টোয়েন্টি বৃহস্পতিবার


জিম্বাবুয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর সাকিবের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ এটি। টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ খেলে সাকিব এর মধ্যেই বোলিং ও ব্যাটিংয়ের ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন। এমন সময় সাকিবকে দলে পাওয়ায় টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর খুশি হওয়ারই কথা!

আজ হারারেতে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, আমি খুবই খুশি দলটা নিয়ে। সাকিব ফিরেছে। সে ব্যাটে-বলে খুবই ভালো করছে।

সাকিবকে দলে পেলেও মাহমুদউল্লাহ পাচ্ছেন না অন্য দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমকে। চোটের কারণে তামিমের আজই জিম্বাবুয়ে থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা। সঙ্গে টেস্ট ও ওয়ানডে দলে থাকা মেহেদী হাসান মিরাজও ফিরবেন। আর মা–বাবার করোনার কারণে মুশফিক আগেই ফিরেছেন দেশে।

বিশ্বকাপের আগে আমাদের ১৬টা ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা আছে। জিম্বাবুয়ে সিরিজেই আপাতত চোখ মাহমুদউল্লাহর তবে অভিজ্ঞদের না থাকা তরুণদের জন্য বড় সুযোগ মনে করেন মাহমুদউল্লাহ, আমরা অবশ্যই তামিম ও মুশফিককে মিস করব। দুজনই আমাদের দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তারপরও আমি বলব, এটা বাকিদের জন্য সুযোগ বাংলাদেশকে জেতানোর।

টি-টোয়েন্টি দলে নতুন মুখ হিসেবে আছেন শামীম হোসেন। যাঁর ব্যাটিং ও ফিল্ডিং ঘরোয়া পর্যায়ে সবার নজরে এসেছে। শামীম ও বাকি তরুণেরা জিম্বাবুয়ের কন্ডিশনে কেমন করেন, তা দেখতে চান মাহমুদউল্লাহ। দলে আরও কয়েকজন নতুন প্রতিভাবান ক্রিকেটার দলে এসেছে। ওদের ফিল্ডিং সামর্থ্য অনেক ভালো। সব মিলিয়ে সবই ভালো। সব সংস্করণেই শুরুটা গুরুত্বপূর্ণ। কাল যেন সেই শুরুটা ভালো করতে পারি এই আশা থাকবে।

জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে। আগামী অক্টোবর-নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ খেলবে ১৬টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। এর মধ্যে বাংলাদেশকে দলের আদর্শ সমন্বয় খুঁজে বের করতে হবে।

এসআর



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *