বিধানসভায় গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে রাজ ও জুন


রাজ চক্রবর্তী ও জুন মালিয়া টেক্কা দিচ্ছেন রাজনীতিবিদদেরও। দুজনের কাজে বেশ খুশি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

বিধানসভার তথ্য সংস্কৃতি সংক্রান্ত আইএনসিএ কমিটিতে নতুন পদে আসীন হলেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী ও মেদিনীপুরের বিধায়ক জুন মালিয়া। বিধানসভার এই কমিটির পাশাপাশি রাজ চক্রবর্তী রয়েছেন, তৃণমূলের সাংস্কৃতিক সেলের দায়িত্বে। দুজনেই দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত রয়েছেন বাংলার সাংস্কৃতি জগতের সঙ্গে। কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের দায়িত্ব রাজ সামলাচ্ছে বিগত কয়েক বছর ধরে। আর জুন এই প্রথম ভোটে দাঁড়ালেও দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত রয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে। তিনি আপাতত রয়েছেন তৃণমূলের ‘বঙ্গজননীতে’ও। তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের মধ্যে যেহেতু রয়েছে ক্রীড়া ও যুব সংগঠন। সেটা নিয়েই বিশেষ আগ্রহ রয়েছে দু’জনের।

ভোটের লড়াইটা দু’জনের কাছেই বেশ কঠিন ছিল। ব্যারাকপুর বিজেপি নেতা অর্জুনের গড় হিসেবেই পরিচিত রাজনৈতিক মহলে। সেখানে জয় হাসিল করা সহজ ছিল না। কিন্তু নমিনেশন জমা দেওয়ার পর থেকেই ব্যারাকপুরের মাটি কামড়ে পড়ে ছিলেন সেখানেই। শুধু তাই নয়, জয়ের পর ও বিধায়ক হিসেবে শপথ নেওয়ার পরেও তাঁকে একাধিকবার তাঁর এলাকায় দেখা গিয়েছে। সেখানকার মানুষদের জন্য নানা ধরনের উন্নতিমূলক কাজও করেছেন রাজ।

নতুন দায়িত্ব পেয়ে রাজ জানিয়েছেন, ‘গোটা রাজ্যের একাধিক জায়গায় আমরা দেখেছি প্রচুর সম্ভাবনাময় ছেলে মেয়েরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের উন্নতি হলে সামাজিক ভাবেও সমৃদ্ধ হওয়া যাবে। সেই চেষ্টাই করব।’ অন্যদিকে জুনের মত, আমার বিধানসভা এলাকায় আদিবাসী ভাই বোনেরা খেলাধূলায় দক্ষ। কিন্তু সঠিক সময়ে প্রশিক্ষণ না পেলে তাঁরাও এগিয়ে যেতে পারে না। এই কমিটির মাধ্যমে আলোচনা করে আমরা এগোতে পারব সকলে।

ডি-এফবি



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *