ভুয়া করোনা টিকা নিয়ে কেমন আছেন মিমি


করোনা টিকা নিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। বুধবার এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার কসবার এক ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পে হাজির হয়ে টিকা নিয়েছিলেন মিমি, পরবর্তীতে খটকা লাগায় তিনি খোঁজ-খবর নিয়ে জানতে পারেন ওই টিকা ক্যাম্প সম্পূর্ণ জাল। এরপর তার তত্পরতাতেই গ্রেপ্তার হয় গোটা চক্রের মূল পাণ্ডা দেবাঞ্জন দেব। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

কসবার টিকাকরণ কেন্দ্রে দেওয়া হয়নি করোনার টিকা, প্রাথমিক তদন্তে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছে। জানা গেছে, টিকার কোনও ভায়ালেই ছিল না ম্যানুফ্যাকচারিং ডেট, এক্সপায়ারি ডেট। গায়েব ব্যাচ নম্বরও। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে পাউডারের সঙ্গে জল মেশানো তরল পদার্থকে কোভিশিল্ড হিসাবে মিমি ও অন্যদের দেওয়া হয়েছিল। ইতিমধ্যেই ওই ভুয়ো ক্যাম্প থেকে বাজেয়াপ্ত টিকা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেতে অপেক্ষা চার-পাঁচদিনের। তবে ভুয়া ক্যাম্প থেকে টিকা নিয়ে কেমন আছেন মিমি? সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন উদ্বিগ্ন অনুরাগীরা।

এদিন ইনস্টাগ্রামে সকলকে আশ্বস্ত করে এক ভিডিয়ো বার্তায় মিমি জানান, ‘আমি একদম সুস্থ আছি, আপনারা সকলে আমাকে মেসেজ করেছেন ধন্যবাদ’। ভুয়া ক্যাম্পে প্রতারণার শিকার সকলের উদ্দেশে মিমি বলেন, ‘দেখুন, আমরা সবাই প্রতারিত, আমাদের হাতে এখন আর কিছু নেই। তবে আমার মনে হয় আমি যখন সুস্থ আছি, আপনারাও রয়েছেন শুধু প্যানিক করবেন না। আমার কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে, ইতিমধ্যেই ওই টিকার স্যাম্পেল পরীক্ষার জন্য চলে গেছে। ওই টিকা গুলোয় কী ছিল সেটা আমরা রিপোর্ট এলে জানতে পারব, তবে যেটুকু আমি জেনেছি ওর মধ্যে ক্ষতিকারক কোনও পদার্থ ছিল না, তবে হ্যাঁ আমরা সকলেই মোটামুটি নিশ্চিত ওতে করোনা টিকা অবশ্যই ছিল না। কিন্তু, পুরোপুরি নিশ্চিত হতে আমাদের রিপোর্ট হাতে পাওয়া অবধি অপেক্ষা করতে হবে’।

কসবা ছাড়াও আরও অনান্য জায়গাতেও দেবাঞ্জন দেব নামের ওই প্রতারক করোনা টিকা ক্যাম্প আয়োজন করেছিলেন বলে দাবি করেন মিমি, তিনি জানান যারা দেবাঞ্জন দেবের ক্যাম্পে টিকা নিয়েছেন তারা সকলেই যেন কেএমসির সঙ্গে কিংবা নিজ এলাকার কাউন্সিলর বা বিধায়কদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পরবর্তীতে কী পদক্ষেপ নিতে হবে তা বিস্তারিত জানতে।

মিমি এদিন করোনা টিকা নিতে গেলে জালিয়াতদের হাত থেকে বাঁচতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, তা জানান। ভিডিয়োতে করোনা টিকা নেওয়ার পরবর্তী সার্টিফিকেট কেমন হবে তা তুলে ধরেন মিমি, পাশাপাশি জানান টিকা নেওয়া হলেই সঙ্গে সঙ্গে রেজিস্টার করা মোবাইল নম্বরে মেসেজ আসবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। সেই মেসেজ কখনও কখনও আসতে দেরি হয় ঠিকই, তবে সার্টিফিকেটের ব্যাপারে যেন সকলেই বিশেষ নজর দেয়।

টিকা নেওয়ার পর সার্টিফিকেট হাতে না পাওয়ার জেরেই মিমির মনে সন্দেহ দানা বেঁধেছিল এবং সেখান থেকেই এই গোটা চক্রের পর্দা ফাঁস করতে সক্ষম হয়েছেন বলে এই ভিডিয়োতে জানান অভিনেত্রী। করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়েও এদিন অনুরাগীদের সচেতন করেন তারকা সাংসদ।

ডি-ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *