প্রিয় অভিনেত্রীকে একবার দেখতে ৯০০ কিমি পাড়ি


রশ্মিকা মন্দানাকে একবার চোখের দেখা দেখার জন্য তেলঙ্গনা থেকে কর্নাটক পর্যন্ত পাড়ি দিলেন তার এক অনুরাগী। অভিনেত্রীর বাড়ির ঠিকানার জন্য গুগলের সাহায্যও নিলেন। কিন্তু নির্দিষ্ট বাড়ি চিনতে না পেরে পথচারীদের জিজ্ঞাসা করতে থাকায় সন্দেহ হয় এলাকার বাসিন্দাদের। পরে ডাকা হয় পুলিশ।

দক্ষিণী চলচ্চিত্র জগতে এখন মধ্যমণি রশ্মিকা মন্দানা। কিরিক পার্টি, গীতা গোবিন্দম, ডিয়ার কমরেড ইত্যাদি ছবি তাকে সাফল্যের চূড়ার কাছাকাছি পৌঁছে দিয়েছে। এমনকি গুগলে ‘ন্যাশনাল ক্রাশ অব ইন্ডিয়া’লিখলে এই অভিনেত্রীর নাম দেখায়। বিন্ধ্য পর্বতের অন্য পারেও যাত্রা শুরু করেছেন তিনি। সিদ্ধার্থ মলহোত্রর সঙ্গে বলিউডে প্রথম ছবির শ্যুটিং করছেন আপাতত। ছবির নাম মিশন মজনু। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তার অনুরাগী ছড়িয়ে রয়েছেন। তাদেরই মধ্যে একজন অকল্পনীয় কাণ্ড ঘটিয়ে বসলেন।

রশ্মিকাকে একবার দেখার জন্য আকাশ ত্রিপাঠী নামের সেই অনুরাগী তেলঙ্গনা থেকে কর্নাটক পর্যন্ত ৯০০ কিলোমিটার পাড়ি দিলেন। তেলঙ্গনা থেকে ট্রেনে চেপে মাইসোর, সেখান থেকে অটো করে মুগ্গুলা পৌঁছন আকাশ। সেখান থেকে গুগল মানচিত্রের সাহায্যে কর্নাটকের বিরাজপেটে হাজির হন তিনি। বিরাজপেটে জন্ম রশ্মিকার। বাবা-মায়ের সঙ্গে সেখানেই থাকেন অভিনেত্রী।

কিন্তু এই মুহূ্র্তে মুম্বইয়ে মিশন মজনুর শ্যুটে ব্যস্ত। সে কথা জানতেন না আকাশ। তিনি সেই এলাকার সমস্ত পথচারীদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকেন। রশ্মিকার নাম করে তাঁর বাড়ির ঠিকানা চাইতে থাকেন। তখনই আকাশের উদ্দেশ্য নিয়ে বাসিন্দাদের মনে সন্দেহ জাগে। পুলিশ এসে আকাশকে বাড়ি ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দেন। তাতেও রাজি হননি আকাশ। তখন তাকে জানানো হয়, রশ্মিকা কর্নাটকেই নেই, তিনি এই মুহূর্তে মুম্বইয়ে।

ডে/ এসআর



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *