সবাইকে ছাড়িয়ে রোনালদো, ফলোয়ার ৩০ কোটি


ইউরো কাপ চলাকালীনই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনবদ্য রেকর্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর। বিশ্বের প্রথম ব্যক্তি হিসেবে ইনস্টাগ্রামে ৩০০ মিলিয়ন অর্থাৎ ৩০ কোটি ফলোয়ার ছুঁয়ে ফেললেন সিআর সেভেন। ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের সংখ্যার নিরিখে ক্রিশ্চিয়ানোর ধারে-কাছেও নেই অন্য কোনও অ্যাথলেট। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ডোয়েন দ্য রক জনসনের ফলোয়ার সংখ্যা ২৪৬ মিলিয়ন। অর্থাৎ ২৪ কোটি ৬০ লক্ষের আশেপাশে। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

তিনি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যার পায়ের ছোঁয়ায় বদলে যেতে পারে যে কোনও ফুটবল ম্যাচের ভাগ্য। যার সামান্য একটা কথাতেই কোটি কোটি টাকা লোকসান হতে পারে বিশ্বখ্যাত ঠান্ডা পানীয় সংস্থার। খেলার মাঠে তিনি যতটা দাপট দেখাতে পারেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তার দাপট ততটাই। বিশেষ করে নারী অঙ্গনে রোনালদোর জনপ্রিয়তা অন্য মাত্রার। সেই গগনচুম্বী জনপ্রিয়তায় ভর করেই ভার্চুয়াল দুনিয়ায় এই নয়া রেকর্ডের মালিক হলেন সিআর সেভেন। এর আগে ইনস্টায় ২০০ মিলিয়ন ফলোয়ার সংখ্যাও তিনিই প্রথম ছুঁয়েছিলেন। ফুটবল মাঠে মেসি যতই তার প্রতিদ্বন্দ্বী হোন, ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার সংখ্যার হিসেবে রোনালদোর ধারে-কাছেও নেই আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। ইনস্টায় মেসির ফলোয়ার সংখ্যা ২১৯ মিলিয়ন।

স্ত্রী ও সন্তানদের সঙ্গে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

শুধু ফলোয়ার সংখ্যার নিরিখেই নয়, ইনস্টাগ্রাম থেকে রোজগারের নিরিখেও বিশ্বের সেরা রোনালদোই। শেষ প্রকাশিত হিসেব অনুযায়ী, ২০১৯ সালের মার্চ থেকে ২০২১ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত রোনালদো ইনস্টা থেকে রোজগার করেছেন ৫০.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা কিনা জুভেন্টাসে খেলার বেতনের থেকেও বেশি। জুভেন্টাসে খেলে রোনালদো বার্ষিক ৩৩ মিলিয়ন ইউরো রোজগার করেন। গতবছর বিশ্বের অ্যাথলিটদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১২০ মিলিয়ন ডলার রোজগার করেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানোই।

প্রসঙ্গত, চলতি ইউরোতে পর্তুগালের জার্সি গায়ে প্রথম ম্যাচেই জোড়া গোল করেছেন রোনালদো। তার জোড়া গোলের সুবাদেই হাঙ্গেরির বিরুদ্ধে জয় দিয়ে অভিযান শুরু করেছে পর্তুগাল। তাদের পরবর্তী ম্যাচ জার্মানির বিরুদ্ধে।

ডি-ইভূ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *