কঙ্গনার টুইটা অ্যাকাউন্ট স্থগিত – শেয়ার বিজ


শোবিজ ডেস্ক: বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত টুইটে সহিংসতায় ইন্ধন যুগিয়েছেন এই অভিযোগে তার টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থগিত করা হয়েছে। তবে ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে টু্‌ইটার তার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে।

এই টুইটে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ‘২০০০ এর গোড়ায়’ তিনি যে কায়দায় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, একজন বিরোধী নেতাকে ‘শায়েস্তা করতে’ এবারেও তিনি যেন ঠিক সেই একই কায়দাই ব্যবহার করেন। এই কথার মধ্যে দিয়ে তিনি দাঙ্গার পথ নেওয়ার প্রতি ইঙ্গিত করেছেন যে দাঙ্গায় প্রাণ হারিয়েছিলেন হাজার হাজার মুসলিম। রানাওয়াতের এই বার্তা নিয়ে সাথে সাথে টুইটারে ব্যাপক ক্ষোভের ঝড় ওঠেছে। তার সর্বসাম্প্রতিক এই টুইটটিতে বিরোধী নেতা বলে তিনি টার্গেট করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে।

টুইটার এ ব্যাপারে এখনো কোন বিবৃতি দেয়নি। তবে টুইটারের একজন মুখপাত্র বিবিসি নিউজকে বলেছেন, রানাওয়াত বারবার বিদ্বেষপূর্ণ এবং উসকানিমূলক মন্তব্য করে ও হয়রানিমূলক আচরণ দেখিয়ে এই প্ল্যাটফর্মের নিয়মনীতি লংঘন করেছেন।

এএনআই সংবাদ সংস্থাকে তার প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রানাওয়াত টুইটারের বিরুদ্ধে বর্ণবাদের অভিযোগ তুলেছেন। তিনি বলেছেন, টুইটার আমার মতকেই সত্য প্রমাণ করেছে যে তারা জন্মসূত্রে আমেরিকান এবং একজন শ্বেতাঙ্গ ব্যক্তি মনে করে একজন বাদামি চামড়ার মানুষকে দাস হিসাবে দেখার অধিকার তার আছে। তারাই বলে দেবে বাদামিরা কী ভাববে, কী বলবে বা কী করবে। আমার জন্য আরও অন্য প্ল্যাটফর্ম আছে যেখানে আমি গলা তুলে কথা বলতে পারব। এর মধ্যে শিল্প মাধ্যম হিসেবে সিনেমাও আছে।

বিতর্ক সৃষ্টিতে নতুন নন কঙ্গনা রানাওয়াত। বলিউড জগতে স্বজনপোষণের বিরুদ্ধে কথা বলে, বিষয়টিকে সামনে এনে তিনি প্রথমদিকে প্রশংসাই কুড়িয়েছিলেন। কিন্তু অল্পদিনের মধ্যেই সিনেমা জগতে এবং বাইরেও তিনি বিভেদ সৃষ্টিকারী একজন ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন। তিনি প্রায়শই টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামের মত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে সহকর্মী ও তারকাদের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ তোলেন, তাদের বিরুদ্ধে গুরুতর ও জঘন্য রুচির হামলা চালান।

সোনাম কাপুরকে তিনি উল্লেখ করেন একজন ‘মাফিয়া বিম্বো’ বলে অর্থাৎ তিনি বোধবুদ্ধি ও গুণাগুণবিহীন একজন মাফিয়া। ঊর্মিলা মাতণ্ডকারকে তিনি অভিহিত করেন ‘একজন পর্ন তারকা’ হিসেবে এবং দীপিকা পাডুকন মানসিক বিষণ্নতা নিয়ে লড়ে যাওয়ার কথা বলার পর রানাওয়াত তাকে নিয়ে ব্যঙ্গবিদ্রূপাত্মক মন্তব্য করেন।

রানাওয়াতের টুইট শুধু যে বিতর্কিত তাই নয়, কখনও কখনও তা মানুষকে আঘাত দেবার মত এবং নিছক কল্পনাপ্রসূত। ফেব্রুয়ারি মাসে এক টুইট মন্তব্যে তিনি বিশ্বের মানুষের কাছে ঘোষণা করেন যে ‘তার মত এত ব্যাপক বহুমুখী প্রতিভা এই মুহূর্তে পৃথিবীর কোন অভিনেত্রীর নেই,’। তিনি আরও বলেন যে, তার যে ‘ব্যক্তিগত প্রতিভা’ তা একমাত্র অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপের সমতুল্য এবং অভিনয়ের দক্ষতায় তিনি ওয়ান্ডার উম্যান তারকা গল গ্যাডোটের সমকক্ষ।

সূত্র: বিবিসি বাংলা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *