সিনোফার্মের পর অনুমোদন পেল চীনের টিকা সিনোভ্যাক


সিনোফার্মের পর চীনের তৈরি আরো একটি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সিনোভ্যাকের ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। রবিবার (৬ জুন) অধিদপ্তরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন লিমিটেড ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের আবেদনের প্রেক্ষিতে ডোসিয়ার ( ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল পার্ট, সিএমসি পার্ট এবং রেগুলেটার স্ট্যাটাস) মূল্যায়ন করে করোনা চিকিৎসার জন্য পাবলিক হেলথ এজেন্সির ক্ষেত্রে ঔষধ ইনভেস্টিগেশন ড্রাগস, ভ্যাকসিন এবং মেডিকেল ডিভাইস মূল্যায়নের জন্য গঠিত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর চলতি বছরের ৩ জুন স্নো হোয়াইট এর অনুকূলে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। বাংলাদেশে ভ্যাক্সিনটির লোকাল এজেন্ট মেসার্স ইনসেপ্টা ভ্যাক্সিন লিমিটেড।

চীনের ন্যাশনাল মেডিসিনাল প্রডাক্টস এডমিনিস্ট্রেশন চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি এই ভ্যাক্সিনের অনুমোদন দেয়। যা করো ২২টি দেশে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহার করা হচ্ছে।

১৮ বছরের বেশি বয়স্কদের এ ভ্যাক্সিনটি ব্যবহার করা যায়। এই ভ্যাক্সিনটি বাংলাদেশ সরকারের ডিপ্লয়মেন্ট প্ল্যান অনুযায়ী নির্ধারিত বয়সের ব্যক্তিদের মধ্যে দেওয়া হবে। দুই ডোজ সম্পন্ন এই ভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজের দুই থেকে চার সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। এই ভ্যাক্সিন সংরক্ষণের তাপমাত্রা ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ১ জুন জরুরি ব্যবহারের জন্য সিনোভ্যাক বায়োটেক উদ্ভাবিত ভ্যাকসিনটি অনুমোদন দেয়।

ডি-এফবি



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *