আলোচনায় ‘মিস্টার কে’


কথাসাহিত্যিক মাহবুব মোর্শেদের উপন্যাস ‘নোভা স্কশিয়া’ অবলম্বনে ‘মিস্টার কে’ নামে টেলিফিল্ম নির্মাণ করেছেন পরিচালক ওয়াহিদ তারেক। ‘বঙ্গ বব’ সিজন ওয়ান সিরিজের এই বিশেষ টেলিফিল্মটিতে অভিনয় করেছেন পার্থ বড়ুয়া, নাজিয়া হক অর্ষা, সুষমা, শাহেদসহ আরো অনেকে। গত ১৯ মে ঈদের ৬ষ্ঠ দিন বঙ্গ বিডি ইউটিউব চ্যানেলে টেলিফিল্মটি প্রচারিত হওয়ার পরপরই বেশ সাড়া ফেলে।

এই টেলিফিল্মে দেখা যায়, ধনী বাবার বিদেশি ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খুলতে ছেলেকে সাহায্য করছেন এক পরিসংখ্যানবিদ। তবে সব হিসাব কি অংকে মিলে? এমনই এক রহস্যের সমাধান পাওয়া যায় টেলিফিল্মটিতে। কেমন সাড়া পাচ্ছেন, এমন প্রশ্নে অভিনেত্রী নাজিয়া হক অর্ষা বলেন, ‘এতে অভিনয় করে ভালো সাড়া পাচ্ছি। এটার সাড়া পাওয়া আমার জন্য পজিটিভ। আমার কাছে যেটা সবচেয়ে ভালো লেগেছে যে, দেশীয় উপন্যাসের উপর বেজড করে বঙ্গবিডি কাজ করেছে।

সাধারণত দেখা যায় যে বিদেশি গল্প নিয়ে নিজেদের মতো করে নির্মাণ করা হয়। আমাদের নিজেদেরও তো অনেক ধরনের গল্প থাকতে পারে। আমাদের নিজেদের গল্পগুলো নিয়ে অনেক দিন কাজ করা হয় নাই। এই বিষয়টাকে আমি সাধুবাদ জানাই। মিস্টার কে নিয়ে আমার একটা কনফিউশন ছিল যে, এই গল্পটা এ রকম যে এটা সবাই হুট করে বুঝে উঠতে পারবে না। এই গল্পগুলো সবার জন্য বোধগম্যও নয়। তারপরও বেশ সাড়া পাচ্ছি। তবে এ ধরনের গল্প আমার খুব পছন্দের।’

কথাসাহিত্যিক মাহবুব মোর্শেদ বলেন, ‘‘মিস্টার কে’ অপ্রত্যাশিত সাড়া ফেলেছে। লেখক হিসেবে বলতে পারি আমার গল্পটা ভিজ্যুয়ালি আনা খুব কঠিন ছিল। কিন্তু গল্পে কিছু কাটছাঁট করতে হয়েছে। তারপরও গল্পটি ভালোভাবেই ভিজ্যুয়ালাইজড করতে পেরেছেন পরিচালক। এ জন্য তিনি ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য। বিশেষ করে পার্থ বড়ুয়া, সুষমা সরকার, অর্ষাসহ প্রত্যেকেই খুব ভালো অভিনয় করেছেন। সব মিলিয়ে এটা একটা ভালো প্রযোজনা ছিল। বঙ্গকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাতে হয়।’

এদিকে পরিচালক ওয়াহিদ তারেক বলেন, ‘আমি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নেই। তারপরও প্রচুর ফোন পাচ্ছি এই টেলিফিল্মটি নির্মাণ করে। এতে আমি সত্যিই অবাক হয়েছি।’

The post আলোচনায় ‘মিস্টার কে’ appeared first on Bhorer Kagoj.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *