ফাইজারের টিকা নিবন্ধিত ব্যক্তিরাই পাবেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী


স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ফাইজারের টিকা সিরিয়াল অনুযায়ী নিবন্ধিত ব্যক্তিরাই পাবেন। সরকার নির্ধারিত চারটি টিকাদান কেন্দ্রে এই টিকা দেওয়া হবে।

সোমবার (৭ জুন) রাজধানীর বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনসে ‘জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন ২০২১’ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আজ রাতে (৭ জুন) ফাইজারের টিকার ডায়লুয়েন্ট আসবে। ফাইজারের টিকা ও সিনোফার্মার টিকা দুটোই চলমান থাকবে। ১৩ জুন সিনোফার্মা থেকে আরও ৬ লাখ টিকা আসবে। তখন থেকে ফাইজারের টিকাদান কার্যক্রমও শুরু হবে। তিনি আরও বলেন, ‘সিনোফার্মের সঙ্গে আমরা চুক্তিবদ্ধ হচ্ছি, তারা যেন আপাতত আগামী তিন মাসে দেড় কোটি টিকা দেয়।

মন্ত্রী বলেন, সিনোভ্যাকও টিকা দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশে তারা টিকা তৈরিও করতে চায়। সিনোভ্যাকের টিকা ব্যবহারের জন্য জরুরি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তাদের সঙ্গে আলোচনা প্রাথমিক পর্যায়ে আছে। তারা যদি আমাদের এখানে দিতে পারে এবং দেশীয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তৈরি করতে পারে, তাহলে সে সুযোগও করে দেওয়া হবে।

রাশিয়ার টিকা পেতে চুক্তি খসড়া পর্যায়ে আছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, রাশিয়া ইতিবাচক টিকার বিষয়ে। দ্রুতই চুক্তি চূড়ান্ত হয়ে যাবে।

করোনার চিকিৎসায় রোগী প্রতি খরচের বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট বের করেছে যে যারা সাধারণ শয্যায় থাকেন, তাঁদের জন্য প্রতিদিন ১৫ হাজার টাকা এবং আইসিইউতে ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়।

ডে/এসআর



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *